Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / অবরুদ্ধ কাতারে প্লেন-ভর্তি খাদ্য পাঠাল ইরান

অবরুদ্ধ কাতারে প্লেন-ভর্তি খাদ্য পাঠাল ইরান

কমলগঞ্জ বার্তা ডেস্ক,রিপোর্টঃ

আঞ্চলিক অবরোধের কারণে দুর্ভোগের শিকার কাতারে পাঁচটি উড়োজাহাজ ভর্তি করে খাদ্যপণ্য পাঠিয়েছে ইরান। প্রতিটি উড়োজাহাজে প্রায় ৯০ টন করে খাদ্যপণ্য রয়েছে।
বিবিসির অনলাইনের খবরে বলা হয়, কাতারের মোট খাদ্যপণ্যের ৪০ শতাংশই আসে সৌদি আরবের সীমান্ত দিয়ে; যা গত সপ্তাহে কাতারেরে বিরুদ্ধে সৌদি আরবসহ ছয়টি দেশের অবরোধের পর থেকে বন্ধ রয়েছে। এতে অনেকটা দুর্ভোগে পড়েছে কাতার।
ইরানের মুখপাত্র শাহরোক নওশাবাদি আজ রোববার বলেন, ‘এখন পর্যন্ত পাঁচটি উড়োজাহাজে করে ফল, সবজিসহ বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রী কাতারে পাঠানো হয়েছে। প্রতিটি উড়োজাহাজে প্রায় ৯০ টন খাদ্যপণ্য পাঠানো হয়েছে। আরও একটি উড়োজাহাজ পাঠানো হবে।’ তবে ইরান এই খাদ্যপণ্য সহায়তা হিসেবে, নাকি বাণিজ্যিক লেনদেনের অংশ হিসেবে কাতারে পাঠিয়েছে—সেটি এখনো স্পষ্ট নয়। ইরান কর্তৃপক্ষ টুইটারে খাদ্যপণ্য কাতারে পাঠানোর একটি ছবি পোস্ট করেছে। সেখানে নওশাবাদি বলেন, ‘কাতারের যত দিন চাহিদা থাকবে, তত দিন সরবরাহ করা হবে।’ এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৩৫০ টন খাদ্যসহ আরও তিনটি উড়োজাহাজ কাতারে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছে। সৌদি আরব, বাহরাইন এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত কাতারের জন্য তাদের আকাশসীমা বন্ধ করে দেওয়ার পর ইরান কাতারের জন্য তার আকাশসীমা খুলে দিয়েছে।
বিশ্লেষকেরা বলছেন, শিয়া নেতৃত্বাধীন ইরানের সঙ্গে কাতারের সুসম্পর্ক সুন্নিপ্রধান সৌদি আরবের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। গত সপ্তাহে কাতারের সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করার যে ঘোষণা সৌদি আরব দিয়েছে, তাতে এ বিষয়টিই বড় ভূমিকা রেখেছে। যদিও সন্ত্রাসবাদে মদদ দেওয়ার অভিযোগ তুলে কাতারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দেয় সৌদি আরব। সৌদি আরবের পর মিসর, বাহরাইন, লিবিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইয়েমেনও কাতারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দিয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

সৌদি আরব প্রবাসী কমলগঞ্জের রুবিনা বেগমের সন্ধান চায় তার পরিবার

বিশেষ প্রতিনিধিঃ মেয়েটির নাম রুবিনা বেগম। তার বাড়ী মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ইসলামপুর ইউনিয়নের রাজকান্দি গ্রামে। হতদরিদ্র মা ...