Breaking News
Home / ইতিহাস ও ঐতিহ্য / কমলগঞ্জের ভাগ্যাকাশ থেকে দুই নক্ষত্রের পতন

কমলগঞ্জের ভাগ্যাকাশ থেকে দুই নক্ষত্রের পতন

রাফি আহমেদ রিপন।।

চলতি মে মাসে কমলগঞ্জের ভাগ্যাকাশ থেকে হারিয়ে গেলেন দুই উজ্বল নক্ষত্র ।  এই দুই মহান ব্যক্তি তাদের মেধা ও প্রজ্ঞার মাধ্যমে কমলগঞ্জের গৌরবকে জাতীয়ভাবে তুলে ধরেছিলেন।  এদের মধ্যে একজন হলেন ‘লাল কালির কবিতা’ খ্যাত প্রয়াত কবি আবু কায়সার খানের সহোদর ভ্রাতা  এডভোকেট আলহাজ্ব আব্দুল মুকিত খান ও অপরজন  হলেন শমশেরনগরের মরহুম প্রধান শিক্ষক বশির আহমদের সহোদর  ডাঃ এম. এ মতিন ।

এডভোকেট আলহাজ্ব আব্দুল মুকিত খান ::

বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, লেখক; আইনবিদ, সংগঠক ও ট্রেড ইউনিয়ন নেতা বহু আন্দোলনের সাহসী কন্ঠ মুক্তচিন্তার সামনের কাতারের মানুষ এডভোকেট আলহাজ্ব আব্দুল মুকিত খান। তিনি দীর্ঘদিন নয়াযুগ পত্রিকার বার্তা সম্পাদকের দ্বায়িত্বে ছিলেন। তার সম্পাদনায় ‘শানে নুযুল’ নামে একটি পত্রিকাও প্রকাশিত হতো।  শমশেরনগর কিশোর খেলাঘর, বিকিরণসহ বিভিন্ন সংগঠনের উপদেষ্টা ছিলেন তিনি।  গত ২২শে মে শুক্রবার তিনি তার ঢাকার কাফরুলস্থ বাসায় ইন্তেকাল করেন (ইন্না..রাজিউন)।  মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪বছর। প্রয়াত আব্দুল মুকিত খান স্ত্রী, ২কন্যা সন্তানসহ অসংখ্য বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। গত ২৩ মে সকাল ১১টায় জানাজার নামাজ শেষে তাঁর মরদেহ গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার মীর্জানগর গ্রামে দাফন করা হয়।  তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন জাতীয় সংসদের সাবেক চীফ হুইপ উপাধ্যক্ষ ড. এমএ শহীদ এমপি, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা, ইন্টারন্যাশনাল কালচারেল ফোরাম, বঙ্গবীর ওসমানী স্মৃতি পরিষদ সহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন।

ডাঃ এম. এ মতিন ::

কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগরের মরহুম প্রধান শিক্ষক বশির আহমদের সহোদর ভ্রাতা ডাঃ এম. এ মতিন । তিনি মৌলভীবাজারের সাবেক সিভিল সার্জন ও বিএমএ’র সদস্য, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের  সহকারী পরিচালক(ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের ম্যালেরিয়া কন্ট্রোল) ছিলেন। দীর্ঘ চাকরী জীবনে তিনি মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন উপজেলায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি একজন  ভাল মনের মানুষ ছিলেন।

গত ২২শে মে রাত ৮টায় ডাঃ এম. এ মতিন তাঁর সিলেট উপশহরস্থ বাসায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।(ইন্না লিল্লাহিৃরাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮০বছর। তাঁর এক ছেলে শরীফ ঢাকায় ব্যবসা করছেন । অপর ছেলে সাঈফ শাবিপ্রবির ইংরেজীর অধ্যাপক। একমাত্র মেয়ে রাবেয়া মুন্নী সিলেটে চিকিৎসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।
কমলগঞ্জ শ্রীমঙ্গল নির্বাচনী এলাকার মাননীয় সাংসদ উপাধ্যক্ষ ড. এম এ শহীদ ডা. মতিনের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

শারদীয় দুর্গা পূজার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইফতেখার আহমেদ বদরুল-কমলগঞ্জ বার্তা

আমিনুল ইসলাম (হিমেল) কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি ॥ শারদীয় দূর্গোৎসবে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বন্ধন অটুঁট থাকার প্রত্যাশা ...