Breaking News
Home / কমলগঞ্জ / কমলগঞ্জের মাধবপুরে গ্রামীণ রাস্তা ও কালভার্ট নয় যেন মরণফাঁদ

কমলগঞ্জের মাধবপুরে গ্রামীণ রাস্তা ও কালভার্ট নয় যেন মরণফাঁদ

মো:মালিক মিয়া কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) ॥

মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার ৮ নং মাধবপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডে ভান্ডারীগাঁও ও লঙ্গরপার শান্তিনগর ও এর আশপাশের ১০ থেকে ১৫ টি গ্রামের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যোগাযোগের একমাত্র এ গ্রামীণ খাঁচা সড়কের করুন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। নামকাওয়াস্তে মেইন সড়ক থেকে বিগত কয়েক বছর আগে কিছুটা ইট সলিং করা হলেও বাকিটা খাচাঁ তাকায় সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মণিপুরী সনাতন ও মুসলিম ধর্মের লোকজন অধ্যুষিত এ গ্রামগুলোর হাজার হাজার স্কুলছাত্রীসহ নানান পেশায় জড়িত সাধারণ লোকজনকে। উপজেলা সদর থেকে ভানুগাছ বাজার হয়ে মাধবপুর সড়ক থেকে নুরজাহান চা বাগান বাইপাস বটরতল শ্রীমঙ্গল সড়কের সংযুক্ত এ গ্রামগুলোর অবস্থান।একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও একটি ক্লিনিকসহ ধর্মীয় মসজিদ মন্দির এবং চা বাগানের সাথে এই সড়কটির যোগাযোগ রয়েছে ।কিন্তু রাস্তাটি খাঁচা হওয়াতে এ পথে যাতায়াতকারী যানবাহনসহ লোকজনের কষ্টের কোন শেষ নেই এ রাস্তাটির বর্তমান সময়ের সাথে তাল মেলালে রাস্তাটি যেন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। আজ ১২ ডিসেম্বর রোজ শুক্রবার দুপুরের দিকে সরেজমিনে গেলে দেখা যায় কেউ কেউ এই রাস্তাটি পাড়ি দিতে গিয়ে আল্লাহ এবং ভগবানের নাম জপ করে করে রাস্তাটি পাড়ি দিচ্ছেন। করুণ চিত্র এতটাই যে খালা খন্দকে ভরা এবং মোটরসাইকেল বাই সাইকেল এর গতিবেগ একটু বেশি হলে যেন রাস্তা থেকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার বাইরে গিয়ে সিটকে পড়বে। অন্যান্য যানবাহন এক ধরনের
চলাচল তো দূরের কথা দিনদিন রাস্তাটি ইট সলিং বা ঢালাই না থাকায় বৃষ্টিতে এবং বর্তমানে ভেঙ্গে ভেঙ্গে তা সংকীর্ণ হতে দেখা গেছে এবং বিভিন্ন জায়গায় আগের করা ইটসোলিং উঠে গেছে যা নিত্যদিনের দুর্ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। অতীব দুঃখের বিষয় গত বর্ষা মৌসুমে অতিবৃষ্টির কারণে প্রায় তিন কিলোমিটার এ রাস্তার শেষ প্রান্তে হিন্দুপাড়া নামক এলাকায় রুপেন্ড মল্লিকের বাড়ির নিকটে নির্মিত কালভার্ট থেকে মাটি সরে যাওয়ায় এ স্থানে ছোট-বড় সব ধরনের যানবাহন এপার অপার হওয়া থেকে বন্ধ হয়েছে। এমনকি রাতের অন্ধকারে এ কালভার্ট পারাপার হওয়ার সময় কেউ কেউ এখান থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোতাহের আলী বলেন,গত বর্ষা মৌসুম থেকে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বারবার কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে তবে কোন সুফল পাওয়া যায়নি। তবে কিছুদিনের ভিতরেই তিনার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে স্থানটি মাটি ভরাট করে দেবেন বলেও কমলগঞ্জ বার্তা প্রতিনিধির সাথে মুঠোফোনে আলাপকালে জানান, এবং সম্পূর্ণ রাস্তাটি ইট সলিং বা ঢালাই করার জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রতি তিনি জোর দাবি জানিয়েছেন

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

কমলগঞ্জে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান

পতনউষার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার পতনউষার ইউনিয়নের শহীদনগর আদর্শ বিদ্যানিকেতনে পিইসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থীদের ...