Breaking News
Home / কমলগঞ্জ / কমলগঞ্জের সম্ভাবনাময় এক পর্যটন স্পট পারুয়াবিল খ্রিষ্টান টিলা

কমলগঞ্জের সম্ভাবনাময় এক পর্যটন স্পট পারুয়াবিল খ্রিষ্টান টিলা

রফিকুল ইসলাম জসিম ।।

বাংলাদেশের উত্তর-পূর্ব কোণে অবস্থিত সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার সদরের ৫ কিলোমিটার দূরত্বের মধ্যে ন্যাশনাল টি কোম্পানি (এনটিসি)-র সত্ত্বাধীন মাধবপুর চা-বাগানের ১১ নম্বর সেকশনে মাধবপুর লেইক এর অবস্থান। এটি একটি কৃত্রিম জলাধার।  বাংলাদেশের পর্যটন আকর্ষনগুলোর মধ্যে এই লেইক অন্যতম।

ঝলমল পানি, ছায়া সুনিবিড় পরিবেশ, শাপলা শালুকের উপস্থিতি আরও মনোমুগ্ধকর করে তুলে। মাধবপুর লেইক যেন প্রকৃতির নিজ হাতে অঙ্কিত মায়াবী নৈসর্গিক দৃশ্য। সুনীল আকাশ আর গাঢ় সবুজ পাহাড়, শিল্পীর তুলিতে আঁকা ছবির মত চা বাগানের এই মনোরম দৃশ্য আকর্ষন করে নিয়ে যায় ভিন্ন জগতে।

প্রকৃতির লীলাভূমি মাধবপুর লেইক থেকে উত্তর-পশ্চিমে মাত্র দেড় কিলোমিটার দূরত্বে ইসলামাবাদ এলাকায় পারুয়াবিল পাড়ায় খ্রিষ্টান টিলা। এ টিলা থেকে আধা কিলোমিটার উত্তরের পদ্মছড়া চা বাগানের ফাঁড়ির ১৪ নং সেকশন রাবার বাগান অবস্থান। অপরূপ প্রকৃতির মেলবন্ধনে গড়ে তোলা হয়েছে পদ্মছড়া রাবার বাগান অল্প সময়ের খ্রিষ্টান টিলা পাশাপাশি রাবার বাগান ঘুরে দেখে যেতে পারেন।

পারুয়াবিল পাড়াতে রয়েছে ৫০ টির মত পরিবার। সেটি একটি আদিবাসী  সাঁওতালপল্লি। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এখানে একটা সময় পারুয়া নামের এক ধরনের বাঁশ জন্মাত। সেই বাঁশের নামেই হয়তো পারুয়াবিল নামকরণ। এর মধ্যে স্রোত গড়িয়েছে অন্যদিকেও। এই পল্লির অর্ধেক পরিবারই খ্রিষ্টান ধর্ম গ্রহণ করেছেন। অর্ধেক আদি ধর্মটিই আঁকড়ে আছেন। তবে ধর্ম তাঁদের ভাগ করলেও সামাজিক ও সাংস্কৃতিক বন্ধনটি এখনো অটুট।

খ্রিষ্টান টিলা সবুজে মোড়া উঁচু টিলার একপাশে পাহাড়, অন্যপাশে স্বচ্ছ ছোট একটি জলের ছড়া। টিলার ওপর দাঁড়ালে হাতছানি দেয় মেঘ-পাহাড়। চায়ের পাতা -ছড়া-পাহাড়ের এই অপরূপ সৌন্দর্যের এ লীলাভূমি এটিও উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান। এ টিলার দক্ষিণ -পূর্ব কোণে যেখানে খ্রিস্টান পল্লী গির্জা নির্মাণ রয়েছে ৷ যীশু খৃষ্টের জন্মোৎসব ‘বড়দিন’ উপলক্ষ্যে এখানে বিশেষ আয়োজন করে থাকে ।

রৌদ্রোজ্জ্বল দিনে এ রাবার বাগানে সুউচ্চ গাছের সবুজ পাতার ফাঁক দিয়ে সোনালি রোদ উঁকি দিয়ে অকৃত্রিম সৌন্দর্যে ভরিয়ে তুলে চারপাশ। ভিন্ন ভিন্ন ঋতুতে ভিন্ন ভিন্ন সাজে সজ্জিত এই রাবার বাগানে আছে অসংখ্য গাছ। বৃষ্টি কিংবা জ্যোৎস্নার দিনে রাবার বাগানের অপরূপ দৃশ্য দেখতে সবচেয়ে বেশি সুন্দর লাগে। এখানে রাবার গাছ থেকে সাদা কাঁচা রাবার সংগ্রহ করে প্রক্রিয়া জাতকরণের মাধ্যমে বড় বড় রাবার শিট বানানো হয়। আর কারখানার বিভিন্ন প্রক্রিয়াগুলো নিজের চোখে দেখা নিঃসন্দেহে দারুণ এক অভিজ্ঞতা।

খ্রিষ্টান টিলা ও রবার বাগান  নান্দনিক সৌন্দর্য্যের পাশাপাশি কমলগঞ্জে আরও দর্শনীয় স্থান হলো- খাজা ওসমানগড় পতনঊষা, শমসেরনগর বিমান ঘাঁটি, দেওড়াছড়া চা বাগান, হামহাম জলপ্রপাত, লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান, ক্যামেলিয়া লেক, বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী হামিদুর রহমান স্মৃতিসৌধ; মাধবপুর লেইক; ললিতকলা একাডেমী ইত্যাদি। দেশ বিদেশের বিভিন্ন জায়গায় মাধবপুর লেইকে এলে লোক পরিচিত না জানার কারণে কমলগঞ্জে মাধবপুর লেইকে পাশ্ববর্তী  সম্ভাবনাময়ী পর্যটন স্পট খ্রিষ্টান টিলা ও রাবার বাগান অপরূপ নৈসর্গিক দৃশ্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন ভ্রমণ পিয়াসী লোকজন।

কমলগঞ্জে মাধবপুর লেকের পাশাপাশি খ্রিষ্টান টিলা ও রবার বাগান পর্যটন কেন্দ্র স্থাপনের জন্য খুবই উপযুক্ত স্থান। সবুজ শ্যামল প্রকৃতির রূপে শোভামণ্ডিত এই এলাকায় পর্যটন কেন্দ্র স্থাপন করা হলে পর্যটকরা যেমন বিশাল এ পাহাড়ে চা বাগানের সৌন্দর্য্য কম সময়ের মধ্যে উপভোগ করতে পারবেন।

মাধবপুর লেইক, খ্রিষ্টান টিলা, রবার বাগান চা বাগানের পাহাড়ের পাদদেশ দিয়ে নির্মিত হয়েছে একটি ছোট্র পাকা রাস্তা। টিলার উঁচু পাহাড়ি আঁকাবাঁকা সেই পথ আর রাস্তার দুই ধারে হরেকরকম গাছগাছালির সবুজ বনায়ন, বাগানে ভিতরে দিয়ে মোটর সাইকেল, সিনএনজি বা প্রাইভেট কার  যোগে সহজে পদ্মছড়া চা বাগান হয়ে শ্রীমঙ্গল যাওয়া যায় ।

চা শ্রমিক ও আদিবাসী সাঁওতালদের বসবাস, তাদের আচার-অনুষ্ঠান আচ্ছন্ন করবে যে কোনো ভ্রমণবিলাসীকে। তবে অপার সম্ভাবনা যোগাযোগের ব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও শুধু লোক পরিচিত না জানার কারণে খ্রিষ্টান টিলা ও রবার বাগান পর্যটন এলাকা হিসেবে স্থান পায়নি। গণমাধ্যম প্রচার ব্যবস্থার
উন্নতি হলে দেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে পর্যটকরা সহজে আসতে পারতেন। সরকারও প্রচুর রাজস্ব পেত বলে মনে করে সচেতন মহল।

যাবেন কীভাবে?

চা বাগানের মধ্যে অবস্থিত বলে এখানে আসার সরাসরি কোনো যোগাযোগ ব্যবস্থা নেই; সিলেট বা মৌলভীবাজার হয়ে এখানে আসতে হয়। মাধবপুর লেইক, খ্রিষ্টান টিলা ও রবার বাগান যেতে হলে প্রথমে ঢাকা থেকে সড়ক বা রেল পথে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল হয়ে কমলগঞ্জে আসতে হবে, এরপর কমলগঞ্জের পদ্মছড়া চা বাগানের মধ্য দিয়ে বা ভানুগাছ চৌমুহনী হয়ে ধলই রোডে মাধবপুর পৌছতে হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

বড়লেখায় টিলা কাটায় ২ ব্যক্তিকে জরিমানা : অবৈধ বালু জব্দ-কমলগঞ্জ বার্তা

কমলগঞ্জ বার্তা রিপোর্ট ॥  বড়লেখা উপজেলা প্রশাসন অবৈধভাবে টিলা কাটায় দুই ব্যক্তিকে ১৩ হাজার টাকা ...