Breaking News
Home / আলোচিত খবর / কমলগঞ্জে মেডিকেল কলেজ স্থাপন প্রসংগ ও বাস্তবতা-জিল্লুল হক

কমলগঞ্জে মেডিকেল কলেজ স্থাপন প্রসংগ ও বাস্তবতা-জিল্লুল হক

লেখক লন্ডন প্রবাসী ॥

উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান কিংবা মেডিকেল কলেজ স্থাপনের জন্য সর্বপ্রথম যে কয়টি শর্ত পুরনের প্রয়োজন হয় তার সবকটিই কমলগঞ্জে বিদ্যমান।
ক) অত্যন্ত উপযুক্ত সুবিশাল ( 335 একর )সরকারি ভূমি অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে।
খ)সড়ক, রেল ,নদী ও আকাশ পথে যোগাযোগের সুবিধা।
গ)মেডিকেল কলেজ স্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় শিক্ষক ,গবেষক, ছাত্র ও কর্মচারীদের জন্য আবাসন সুবিধা ও উচ্চতর গবেষণার জন্য বায়ুদূষণ ও কোলাহল মুক্ত মনোরম পরিবেশ বিদ্যমান।
গ) গবেষক, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জন্য ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার জন্য রয়েছে কমলগঞ্জের এক পাশে শমসের নগর BAF শাহীন school & college. অপর পাশে রয়েছে বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউট school & college.
ঙ) নয়নাভিরাম বিরল প্রজাতির গুল্ম ও বর্ণিল বিহঙ্গের কলতানে মুখরিত প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর লাউয়া ছড়া জাতীয় উদ্যান বন্য ও সরীসৃপ প্রাণীর অভয়ারণ্য ও মৃগয়া ক্ষেত্র। দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের শিক্ষা সফর ,উদ্ভিদ ও বন্যপ্রাণী গবেষণার জন্য পছন্দনীয় ।
এই তো বছর দুয়েক আগে মাননীয় সাংসদ জনাব ডঃ ম,আ,শহিদ সাহেবের নেতৃত্বে একদল বিদেশী কূটনীতিক এই এলাকা পরিদর্শন করে বিমোহিত হন।
চ) কমলগঞ্জের একপাশে শমসেরনগর বিমানবন্দর যাহা বাংলাদেশ বিমান বাহিনী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র অপর পাশে শ্রীমংগলে রয়েছে বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ চা বোর্ড, চা নিলাম হাউস, আবহাওয়া পূর্বাভাস কেন্দ্র, শ্রমঅফিস,বহুজাতিক কোম্পানি ডানকান ও জেমস ফিনলের অনেক চা বাগান ,British Technical Co oporation ,overseas development administration ODA ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান।
ছ) উপনিবেশিক আমল থেকে আজ অবধি কমলগঞ্জও শ্রীমংগলের চা শ্রমিকের কষ্টার্জিত অর্থে জাতীয় অর্থনীতিতে বিরাট বৈদেশিক মুদ্রার জোগান হয়া থকে। কমলগঞ্জ ও শ্রীমংগলের সুস্বাদু আনারস ও কাগজি লেবু বিদেশেও রপ্তানি হয়।
মণিপুরী ,খাসিয়া,চাকমা,কামার,কুমার ও চা শ্রমিকের সামাজিক ও সংস্কৃতিক পরিবেশে সম্মিলিত সহাবস্থান আন্তর্জাতিক সংস্থা UNESCO কতৃক তালিকা ভুক্ত। কমলগঞ্জের সীমান্তবর্তী রাজকানদী বনাঞ্চল ও ডাবল ছড়া পাহাড় রাংঙামাটির পরেই স্থান দখল করে আছে। ১৯৯৭ সালে বহুজাতিক কোম্পানি oxydental কতৃক দুর্ঘটনা কবলিত বাংলাদেশের বৃহত্তম প্রাকৃতিক গ্যাসের মজুদ ক্ষেত্র মাগুর ছড়া কমলগঞ্জেই অবস্থিত। সেই সময়ে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে শিরোনাম হওয়া স্মরণ কালেরসবচেয়ে বড় দুর্ঘটনায় হাজার কোটি টাকার প্রাকৃতিক সম্পদ নষ্ট হয়ে যায়। পরিবেশ, প্রকৃতি ও জীববৈচিত্রের অপূরণীয় ক্ষতি হয়।
ঐতিহাসিক পটভূমির বাস্তবতায় ১৯৭০ সালে নির্বাচনী প্রতারণার অংশ হিসেবে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কমলগঞ্জের শমসের নগরে এসেছিলেন। তারও আগে মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর শমসের নগরে আগমনের তথ্য ইতিহাসে লিপিবদ্ধ। পঞ্চাশের দশকে পারস্য (ইরান) সাম্রাট রেজা শাহ পাহলভী শমসের নগরেই পদার্পণ করেছিলেন । তার আগমনে নির্মিত তোরণ আজও কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে।
বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের বীরত্বগাঁথা ইতিহাসে যে কয়টি সম্মুখ সমর ও বধ্যভূমির বিবরণ পাওয়া যায় তার মধ্যে অন্যতম কমলগঞ্জের ধলাই সীমান্ত সম্মুখ সমর এবং শমসের নগরের বধ্যভূমি। ধলাই সীমান্তে সম্মুখ সমরে আত্মদানকারী অকুতোভয় লড়াকু বীর সেনানী বীর শ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমানের স্মৃতিবিজড়িত কমলগঞ্জ।
১৯৭o সাল থেকে আজ অবধি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতি ধন্য কমলগঞ্জ ও শ্রীমঞল সংসদীয় আসনে বঙ্গবন্ধুর দেয়া নৌকা প্রতিক অপরাজিত হিসেবেই জাতীর কাছে পরিচিত ।
স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছরের ইতিহাসে কমলগঞ্জবাসী যেই তিমির সেই তিমিরেই রয়ে গেছে । ভাগ্যের কোন পরিবর্তন হয়নি। মুজিব বর্ষ ও সুবর্ণ জয়ন্তীর প্রাক্কালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রুপকল্প 2030 ও উন্নয়নের মহাসড়কের অংশীদার হতে সুবিধা বঞ্চিত কমলগঞ্জবাসীর প্রানের দাবী তথা অএ এলাকার মান্যবর সংসদ সদস্য জনাব ডঃ ম আ, শহীদ মহোদয় কতৃক উত্থাপিত কমলগঞ্জে মেডিকেল কলেজ স্থাপন করে জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মমতাময়ী দৃষ্টি দিয়ে কৃতজ্ঞতা পাশে আবদ্ধ করে কমলগঞ্জবাসীর হৃদয়ে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকুন।
লেখক -লেখক লন্ডন প্রবাসী
সাবেক গবেষনা কর্মকর্তা International Centre for Diarrhoeal Disease Research Bangladesh(ICDDRB)ঢাকা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

কমলগঞ্জে বিএমএসএফ’র পক্ষে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান-কমলগঞ্জ বার্তা

আমিনুল ইসলাম হিমেল॥ কমলগঞ্জে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম-বিএমএসএফ’র পক্ষে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী ...