Breaking News
Home / কবিতা / কাঁদতে ইচ্ছে করে

কাঁদতে ইচ্ছে করে

জি.এম.কৃষ্ণা শর্ম্মা ॥
~~~~~~~~~~~~~~~~~~

ইদানীং চুপ করে থাকতেই ভালো লাগে
মাঝেমাঝে খুব চিৎকার করতে ইচ্ছে হয়
কিন্তু পারিনা আমি কোনো ভাবেই।

শত কোটি তারকার ভীড়ে যদি
নির্জন সাগরের সৈকতে দাঁড়িয়ে
মুক্ত বিহঙ্গের মতো যদি চিৎকার করে কাঁদতাম
শুনতো না কেউ নদীর স্রোতের ঢেউয়ের সুরে।

আমার থাকা না থাকা বুঝা বড় দায়!
এখন যদি আমায় কেউ মৃত্যুপুরের দেশে নিতে চায়
আমি এক বিন্দু বাঁধা দেব না-
কারণ,
এই দুনিয়ায় অস্তিত্বেই নেই যে আমার।

তোমাদের আঁখি গুলো আর বেঁচে নেই তাইনা??
দেখোনা বুঝি? এখন আর আমি কবিতা লিখিনা
আমার কবিতার জন্যে কেউই অপেক্ষা করে না।
আমি জানতাম!

আমার যদি অনেক টাকা থাকতো
চার দেওয়ালের নিঃশব্দ একটি
বরফে ঘেরা বাড়ি কিনতাম।

বরফের তাপে নাকি শব্দ শুষে নেয়
সেখানে প্রতিনিয়ত কাঁদতে পারতাম
দিন দুপুরে চিৎকার করতাম,
চিৎকার করে মন ভরে চাইলেই কাঁদতাম
প্রভাতে রবির আলোর বেশে,
বৈকালে সুরভীর গন্ধে-
গোধূলিতে দখিনা বাতাসের বেশে
চিৎকার করে কাঁদতাম।

সভ্য সমাজে পারিনা যা আমি
করে দেখাতাম সেখানে,
গলা অবদি শ্বাস নিয়ে কাঁদতাম
মনের অচিরেই,
সকাল, বিকাল, সন্ধ্যা।
ভুলে যাও ছিলাম যে আমি
ব্যস্ত শহরের দেশে বয়ে চলছি
চিৎকার করে কাঁদার টিকিটের অপেক্ষায়।

২৭, আষাঢ়, ১৪২৭-
কমলগঞ্জ,
মৌলভীবাজার।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

কমলগঞ্জ

মাহিমা বিনতে আহাদ ॥ আমি কমলগঞ্জ , আমার বুকে প্রথম কৃষকপ্রজা, আন্দোলন হয়। আমি অসাম্প্রদায়িক, ...