Breaking News
Home / মৌলভীবাজার / জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড পেল জুড়ীর প্রত্যয়

জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড পেল জুড়ীর প্রত্যয়

কমলগঞ্জ বার্তা ডেস্ক,রিপোর্টঃ জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড এর ২০১৭ সালের আয়োজনে নিজেদের অক্লান্ত শ্রমের স্বীকৃতি পেলো দেশসেরা তরুনদের নেতৃত্বাধীন সংগঠন।আর সেরা এই ৩০টি সংগঠনের মধ্যে রয়েছে মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলার মানবসেবা মূলক সংগগঠন প্রত্যয়।সংগঠনটি বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডের জন্য এ স্বীকৃতি অর্জন করল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা জনাব সজীব ওয়াজেদ সংগঠনের প্রতিনিধি মোঃ মিফতাহ আহমেদ লিটনের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেন। ২১ অক্টোবর শনিবার বিকেলে সাভারে অবস্থিত শেখ হাসিনা ন্যাশনাল ইয়ুথ সেন্টারে আয়োজিত হয় জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড এর এই দ্বিতীয় আয়োজন। পুরস্কার পাওয়া ৫০ প্রতিষ্ঠানসহ মোট ১০০ প্রতিষ্ঠানের তরুণ উদ্যোক্তারা ২০-২১ অক্টোবর দুই দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে নিজেদের প্রতিষ্ঠান নিয়ে কথা বলেন।এই অয়োজনকে শুধু ইয়ং বাংলার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান হিসেবে দেখছেন না সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) কার্যনির্বাহী পরিচালক সাব্বির বিন শামস। তিনি বলেন, “এটি শুধুমাত্র পুরস্কার বিতরণী বা ভালো কাজের স্বীকৃতি দেওয়ার একটি আয়োজন নয়, বরং এর মাধ্যমে দেশের তরুণ উদ্যোক্তারা অনুপ্রেরণা লাভ করে। দেশ গঠনের কাজে তারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে সামনে এগিয়ে আসার প্রেরণা পায়।”ইয়ং বাংলা পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান সিআরআইয়ের কার্যনির্বাহী পরিচালক বলেন, এবার সামাজিক উন্নয়ন, সাংস্কৃতিক কার্যক্রম, ক্রীড়া উন্নয়নসহ আরও বেশ কিছু বিষয়কে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। এবার পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলো নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ, সমাজ থেকে যে কোনো ধরনের নিষ্ঠুরতা ও সহিংসতা দূরীকরণ এবং মাদক থেকে তরুণদের দূরে রাখার কার্যক্রমে সহায়তা করেছে।“এগুলোর পাশাপাশি শিশুদের সামাজিক সহায়তা প্রদান, স্কুল থেকে ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সহায়তা প্রদান, পথ শিশু, শিশু বা প্রতিবন্ধীদের সহায়ক কার্যক্রম, অসহায় নারী, বৃদ্ধ, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়, শরণার্থী, হত-দরিদ্র ও সমাজের অসহায়দের সহায়ক কার্যক্রমের জন্যও পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।”এবারের জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডের আবেদনপত্র আহ্বানের পর দেশের ৪৪টি শহরে এবং ৩২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্যাম্পেইন চালানো হয়। এই আয়োজনের শুরু থেকে ‘আশাতীত’ সাড়া পায় ইয়ং বাংলা। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ১৩০০ প্রতিষ্ঠানের আবেদন আসে। ১৯ অগাস্ট আবেদনের সময়সীমা শেষ হলে শুরু হয় বাছাই কার্যক্রম। প্রাথমিক পর্যায়ে পাওয়া ১৩০০ আবেদনপত্র থেকে বাছাই করা হয় ১০০টিকে। এরপর শুরু হয় তাদের প্রতিষ্ঠানগুলো কে যাচাই ও অনুসন্ধান।দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে সমাজে এই প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রভাব এবং কার্যকারিতা বিবেচনায় এনে ৫০টি প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়। ২০১৫ সালে প্রথমবার জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডের আয়োজনে ১৫০০ আবেদন থেকে ৩০ জন তরুণ ও তাদের প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কৃত করা হয়। সমাজ পরির্বতন, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ, বয়স্ক শিক্ষা এবং সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের জন্য এই পুরস্কার পায় তারা। বিগত দুই বছরে এই ৩০ জন পুরস্কার বিজয়ীকে নিয়ে নানা আয়োজন করে ইয়ং বাংলা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

কমলগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালিত

ষ্টাফ রিপোর্ট ।। মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে উপজেলা যুবলীগের উদ্দ্যেগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৩তম জন্মদিন পালন করা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *