Home / জাতীয় / প্রেমনগর চা বাগান থেকে অপহৃত তরুনীকে উদ্ধার : আটক ২

প্রেমনগর চা বাগান থেকে অপহৃত তরুনীকে উদ্ধার : আটক ২

আহমেদ পায়েল মৌলভীবাজার থেকে ॥ অপহরণের ৪ ঘন্টা পর এক তরুনীকে চা বাগান থেকে উদ্ধার করেছে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ। বাগানের নির্জনস্থানে অভিযানকালে ৪ বখাটে পালিয়ে গেলেও তাদের ব্যহৃত প্রাইভেট কার আটক করা হয়।

১৭ নভেম্বর রোববার রাত ৮টার দিকে সদর উপজেলার মোকামবাজারে অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামী কামাল মিয়া (২৭) ও রুবেল (২৫)কে আটক করা হয়েছে। আটকৃত কামাল মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নিতেশ্বর এলাকার তাজুল মিয়ার পুত্র ও রুবেল মিয়া গিয়াস নগর এলাকার সিদ্দেক মিয়ার পুত্র।

পুলিশ জানায়, শনিবার ১৬ নভেম্বর ১৮ বছর বয়সী এক তরুনী তার অসুস্থ বাবাকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে দেখাশুনা করে রাত প্রায় ১১টার দিকে গ্রামের বাড়ি শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভৈরব বাজার যাচ্ছিল। মেয়েটির মামা জহিরুল ইসলাম তাকে মৌলভীবাজার শহরস্থ হাসপাতালের পুরাতন গেটের সম্মুখে এসে বাড়ি পাঠাতে গাড়ীর জন্য অপেক্ষা করছিলেন।  হঠাৎ একটি প্রাইভেটকার তাদের সামনে এসে থামে। চালক লোকাল যাত্রী নিয়ে শ্রীমঙ্গল যাচ্ছে জানালে মামা নীলাকে গাড়িতে তুলে দিয়ে ভৈরব বাজার নামিয়ে দিতে বলেন।

চলন্ত গাড়ি নিয়ে চালক মৌলভীবাজার শহর পার হয়ে এক পর্যায়ে শ্রীমঙ্গল সড়কে না গিয়ে প্রেমনগর চা-বাগান সড়কে প্রবেশ করে। গাড়ি যাত্রী নীলার সন্দেহ হলে তাৎক্ষনিক তাকে নামিয়ে দিতে চালককে অনুরোধ করেন। এক পর্যায়ে মেয়েটি চিৎকার করে কান্নাকাটি শুরু করলে চালক গাড়ির গতি আরো বাড়িয়ে দেয়। এক পর্যায়ে চা বাগানের ভিতরের নির্জন এলাকা দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। জোরপূর্বক তাকে চা বাগান এলাকা দিয়ে নেয়া হচ্ছে মোবাইল ফোনে কান্না বিজরিত কন্ঠে মামাকে জানাতেই হাত থেকে মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়া হয়।

পতিমধ্যে চালক তার মোবাইলে অন্যান্য সহযোগীদের ওই নির্জনস্থানে আসতে বলে। চা বাগানের নির্জনস্থানে গাড়ি যেতে থাকলে অজ্ঞাত আরো ৩ যুবক হাজির হয়ে কারের ভিতর নীলাকে জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। পুলিশ মেয়েটির বরাত দিয়ে আরো জানায়, মামার মাধ্যমে পুলিশ অপহরণের সংবাদ পেয়ে রাতেই অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাশেদুল ইসলাম’র নেতৃত্বে মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তদন্ত পরিমল দে সহ আরো অনেকে অভিযানে নামেন।

প্রেমনগর চা-বাগানের গেইট পাহারাদার’র তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে শনিবার দিবাগত রাত ৩ ঘটিকার সময় প্রেমনগর চা-বাগানের নির্জন স্থান থেকে অক্ষত অবস্থায় মেয়েটিকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয় পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গাড়ির চালকসহ ৪ বখাটে বাগানের ভেতর দিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় পুলিশ তাদের ব্যবহৃত প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্টো-গ-১৪-২৫৪৭) আটক করে।

মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন রোববার ১৭ নভেম্বর রাতে জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/২০০৩) এর ৭/৯(৪)(খ)/৩০ ধারায় ৪ জনকে আসামী করে থানায় মামলা হয়েছে। মামলা নং-১৪।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রাশেদুল ইসলাম বলেন, গভীর রাতে অভিযানে নেমে আমরা মেয়েটিসহ ব্যবহৃত গাড়ি আটক করি। এছাড়াও রোববার সদর উপজেলার মোকামবাজারে অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামী কামাল ও পরে রবেলকে আটক করা হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

মৌলভীবাজারে পতাকা মিছিল অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ মৌলভীবাজারে অসাম্প্রদায়িকতা, সম্প্রীতি ও মুক্তিযুদ্ধেরে চেতনাকে ধারন করে বৈষম্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে জঙ্গিবাদ, দুর্নিতি ...