Breaking News
Home / কমলগঞ্জ / বাল্লারপারে সংবাদ সন্মেলনে এলাকাবাসীর অভিযোগ

বাল্লারপারে সংবাদ সন্মেলনে এলাকাবাসীর অভিযোগ

কমলগঞ্জ সংবাদদাতা।।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাল্লারপার গ্রামে জনস্বার্থে একটি রাস্তা নির্মাণে স্থানীয় প্রভাবশালী একটি চক্র কর্তৃক বাঁধা সৃষ্টি হয়রানীমূলক মামলা করার অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার বেলা ৩টায় বাল্লারপার এলাকাবাসীর উদ্যোগে আয়োজিত স্থানীয় পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বাল্লারপার গ্রামের মো. ফয়সল আহমদ ও আং মোছাব্বির জানান, কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বাল্লারপার গ্রাম সংলগ্ন এলাকায় একটি মাদ্রাসা ও একটি স্কুল এবং একটি জামে মসজিদের অবস্থান। বাল্লারপার ও আশপাশের ১০/১২টি গ্রামের শত শত স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার শিক্ষার্থীসহ এলাকার লোকজন প্রয়োজনে গ্রামের বিভিন্ন বাড়ির উপর দিয়ে যাতায়াত করে পাবসস অফিস, কমলগঞ্জ পৌরসভা, ভানুগাছ বাজারসহ মাধবপুর রোডে উঠে শ্রীমঙ্গলের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে থাকে। এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির অফিস সংলগ্ন রাস্তার পূর্বাংশের সাথে বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান সড়কের সংযোগ স্থাপনের জন্য স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও জনপ্রতিনিধির মধ্যস্থতায় ভূমির মালিকদের সাথে আলোচনাক্রমে রাস্তা নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয় কয়েকমাস পূর্বে ।তখন এই রাস্তার পূর্বাংশের আনুমানিক ৫০ ফুট জায়গার মালিক কবির মিয়া গংদের সাথেও আলোচনা হয়।আলোচনায় কবির মিয়ার দাবী অনুসারে করে জমির বাজার মূল্য অথবা পার্শ্ববর্তী জায়গায় দ্বিগুণ ভূমি প্রদানের সিদ্ধান্তও হয়।

বৃষ্টি বাদলের মৌসুম শুরু হওয়ার কারণে পরবর্তীতে গত ২ মে সকাল ১০টায় গ্রামবাসী স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে রাস্তাটি নির্মাণ করেন। ভূমি মালিকগংদের সম্মতিতে প্রকাশ্য দিবালোকে রাস্তা তৈরী হলেও একটি কুচক্রী মহল বিষয়টিকে রাতের আঁধারে বিধবা মহিলার জমি দখল করে রাস্তা নির্মাণ হয়েছে বলে উল্লেখ করে সাংবাদিকদের মিথ্যা তথ্য প্রদানের মাধ্যমে বিভিন্ন অনলাইন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে। চক্রটি বিধবা মহিলাকে দিয়ে কমলগঞ্জ থানায় একটি হয়রানীমূলক মামলাও  দায়ের করিয়েছে। গত ৩ মে পৌর মেয়র বিষয়টি সালিশে নিষ্পত্তির প্রচেষ্টা চালালেও  মহিলা উপস্থিত না হওয়ায় অন্যের প্ররোচনায় আমাদের বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে।আমরা এহেন অপপ্রচারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি ।

সংবাদ সম্মেলনে কমলগঞ্জ সদর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, ইউপি সদস্য মাহমুদ আলী, লঙ্গুছড়া পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির সভাপতি রাশিদ মিয়া, বাল্লারপার যুব সংঘের সাধারণ সম্পাদক কয়ছর মিয়া, আবু তালেব, পাখি মিয়া, হাবিবুর রহমানসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা জানান, জনস্বার্থে বাল্লারপার গ্রামের এই রাস্তাটি নির্মাণ হলে ১০/১২টি গ্রামের শুধু উপকার হবেনা । ভানুগাছ বাজারের যানজটও অনেকাংশে কমে আসবে। পর্যটকদেরও যাতায়াতে অনেক সুবিধা হবে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জায়গার মালিক দাবীদার বেনজির জাহান মেরি তার উপর অনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমাকেই হয়রানী করা হচ্ছে । এক বছর আগে তার স্বামী মারা গেছেন। ৪ টি বাচ্চা দিয়ে খুবই অসহায় অবস্থায় আছেন। এই জমি ছাড়া অন্য কোনও জায়গা নেই, এখানে ফসল ফলিয়েই তিনি বাচ্চাদের লালন-পালন করেন।  এখানে পূর্বে কোনও রাস্তা ছিলনা।  তার জমির এলাকার কতিপয় ব্যক্তি রাতের আঁধারে দখল করে রাস্তা নির্মাণ করেছে এজন্য তিনি প্রশাসনের সহযোগীতা চান ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ উপনির্বাচনে দুই প্রার্থীর মনোনয়নের বৈধ ঘোষণা-কমলগঞ্জ বার্তা

স্টাফ রিপোর্টার॥ মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী দু-জন প্রার্থীর দাখিলকৃত মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করে বৈধতা ঘোষনা ...