Breaking News
Home / কমলগঞ্জ / রিলিফের দাবীতে কমলগঞ্জে পরিবহন শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

রিলিফের দাবীতে কমলগঞ্জে পরিবহন শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

রাফি আহমদ রিপন, কমলগঞ্জ ।।

করোনাভাইরাস সংক্রমণকালে যানবাহন চালাতে না পেরে চরম দুর্ভোগের শিকার হয়েছেন মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার পরিবহন শ্রমিক ও চালকরা। এই সময়ে খাদ্য সহায়তা চেয়ে মাসাধিককাল আগে চালকদের তালিকা সহকারে লিখিত আবেদন করেও কোনো সহযোগিতা পাননি বলে অভিযোগ শ্রমিকদের।

খাদ্য সহায়তার দাবিতে ঈদের আগের দিন আজ রোববার (২৪ মে) কমলগঞ্জের ব্যস্ততম জনপদ শমশেরনগর বাজার চৌমুহনায় সড়ক অবরোধ করে পরিবহন শ্রমিক ও চালকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন।

রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় মৌলভীবাজার জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত শমশেরনগর আঞ্চলিক শাখার সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে প্রায় দেড় শতাধিক চালক ও শ্রমিক শমশেরনগর চৌমুহনায় অবস্থান নিয়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন। এ সময় সড়কের উভয় পাশে আটকা পড়েছিল প্রচুর পরিমাণে বিভিন্ন ধরণের যানবাহন। ঈদের শেষ বাজার করতে আসা ক্রেতারাও চরম দুর্ভোগের মাঝে পড়েছিলেন।

প্রায় ঘন্টাখানেক বিক্ষোভ চলাকালে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমদ ও শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক (তদন্ত) অরূপ কুমার চৌধুরী এসে বিক্ষোভকারী পরিবহন শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা করেন। পরে তারা কমলগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক ও জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কথা বলে বিক্ষোভকারী পরিবহন শ্রমিকদের খাদ্য সহায়তা প্রদানের আশ্বাস দিলে বিক্ষোভকারীরা সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করে নেন।

শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক (তদন্ত) অরূপ কুমার চৌধুরী পরিবহন শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শণের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শমশেরনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জুয়েল আহমদ এসে এ বিষয়ে কমলগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হকের সঙ্গে কথা বলেন। তাছাড়া মৌলভীবাজার জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ফজলুল হকের সঙ্গেও কথা বলেন। নির্বাহী কর্মকর্তা ও জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতির সঙ্গে আলোচনা করে আজকের ভেতরে তাদের খাদ্য সহায়তার আশ্বাস দিলে পরিবহন শ্রমিকরা অবরোধ প্রত্যাহার করেন।

এ বিষয়ে মৌলভীবাজার জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ফজলুল হক বলেন, আমরা ইতোমধ্যে সরকারিভাবে কমলগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রায় ২০০ পরিবারকে এবং আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে পরিবহন শ্রমিক ও চালকদের কিছু খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছি। তাছাড়া সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে ত্রাণ সহায়তার দাবিতে আবেদনও করা হয়েছে।

কমলগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক জানান, ইতোমধ্যে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০০ পরিবহন চালক ও শ্রমিকদের ত্রাণ সহায়তা এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যের পক্ষ থেকে ২০০ সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালককে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে কর্মহীন চালক ও শ্রমিকদের সহায়তা দেওয়া হবে।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

কমলগঞ্জে আদমপুর ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলন অনুষ্ঠিত-কমলগঞ্জ বার্তা

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ উৎসব মুখর পরিবেশে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির আদমপুর ইউনিয়ন শাখার সম্মেলন অনুষ্ঠিত ...