Breaking News
Home / জাতীয় / শায়খুল হাদিস আব্দুল মুমীত ঢেউপাশী হুজুরের ইন্তেকাল : দেশ বিদেশে শোকের ছায়া

শায়খুল হাদিস আব্দুল মুমীত ঢেউপাশী হুজুরের ইন্তেকাল : দেশ বিদেশে শোকের ছায়া

এম.এম আতিকুর রহমান॥ মৌলভীবাজারের রত্ন খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা শায়খুল হাদীস আল্লামা আব্দুল মুমীত ঢেউপাশী মঙ্গলবার রাত সোয়া ৯টায় সিলেট মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তিনি দীর্ঘদিন থেকে নানা রোগে দুর্বল ছিলেন। তাঁর ইন্তেকালে বৃহত্তর সিলেটসহ দেশ বিদেশের আলেমসমাজের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। আলেম, উলামা-মাশায়েখ এবং দ্বীনদার বুদ্ধিজিবীদের মধ্যে গভীর শোকের সৃষ্টি হয়েছে। উনার ইন্তেকালে গভীর শোক এবং পরিবার পরিজনের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক, কেন্দ্রীয় মহাসচিব অধ্যাপক ড.আহমদ আবদুল কাদির, মৌলভীবাজার জেলা সভাপতি মাওলানা আহমদ বিলাল, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুল খালিকসহ জেলা উপজেলা খেলাফত মজলিসের নেতৃবৃন্দ।করোনা সংক্রণ থেকে সুরক্ষার এবং দেশে চলমান প্রেক্ষাপটে লকডাউন থাকার কারণে মরহুম ঢেউপাশী (রহঃ) এর পারিবার ও আলেমসমাজের সিদ্ধান্তে ভোর ৬ ঘটিকায় খুব সংক্ষিপ্তাকারে জানাযা ও দাফন উনার বাড়ীর পাশে অনুষ্টিত হবে।ইতোমধ্যে মৌলভীবাজার পুলিশ প্রশাসন বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করেছেন। কাউকে হুজুরের বাড়িতে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। অতএব জানাযায় অংশগ্রহণের চেষ্টা না করে যে যেখানে আছেন বেশি বেশি তেলাওয়াত, নফল নামাজ ইত্যাদি করে দোয়া করতে পারেন হুজুরের জন্য।দেশে করোনা পরিস্থিতি না হলে হুজুরের জানাযায় লক্ষাধিক আলেম-উলামাসহ ধর্মপ্রাণ মানুষ অংশগ্রহণ করতেন এ জানাজা স্বরণীয় হয়ে থাকতো, হুজুর বৃহত্তর সিলেট বিভাগ তথা দেশের প্রবীণ শীর্ষ আলেম এবং ঐতিহ্যবাহী বরুনা মাদ্রাসার বর্তমান শায়খুল হাদিস। আল্লামা ঢেউপাশী (রাহ.) ছিলেন প্রবীণ প্রচারবিমুখ আলেমে দ্বীন অন্যতম ওরাসাতুল আম্বিয়া। গহরপুর জামেয়া থেকে ফারিগ হয়ে মৌলভীবাজার জামেয়া দ্বীনিয়া প্রতিষ্ঠিত করতে অন্যতম পুরোধার ভুমিকা পালন করেন। দীর্ঘদিন সেখানে বুখারীর দারস প্রদানকালে অধমও তাঁর সান্নিধ্য লাভে ধন্য হই। সিলেটের জামেয়া মাদানিয়া কাজিরবাজার মাদরাসার ১২ বছরে হাদীসের খেদমত করে আমৃত্যু তিনি ঐতিহ্যবাহী বরুণা মাদরাসার প্রায় ১ যুগ শায়খুল হাদিসের আসনে অধিষ্ট ছিলেন। তিনি হাজারো ছাত্রছাত্রীর প্রিয় শিক্ষক হিসেবে সমাদৃত ও সুপরিচিত ছিলেন। তাঁর হাতেগড়া অগণিত ছাত্রছাত্রী আজ দেশ বিদেশে বিভিন্ন আসনে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।ঢেউপাশী হুজুরের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করছেন মঙ্গলবার রাতে গণমাধ্যমে প্রেরিত এক শোকবার্তায় মানুষ গড়ার কারিগর ঢেউপাশির জীবন অবসানের মাধ্যমে ইলমে হাদিসের কানন থেকে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র ঝরে পড়লো। হুজুরের ইন্তেকালে সিলেটবাসী একজন বরেণ্য ও নিভৃতচারী আলেমেদ্বীন হারালেন। তাঁর শুণ্যতা সহজে পূরণ হওয়ার নয়। মরহুমের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করে ঢেউপাশির হুজুরের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকাভিভূত পরিবার পরিজন মুহিব্বিনন, মুতায়াল্লিকিনদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে সকলকে সবরে জামিলের তৌফিক কামনা করেন।আহ! একে একে সব আসাতিজায়ে কেরাম আমাদেরকে ইয়াতীম করে চলে যাচ্ছেন। যে বিচ্ছেদ সহ্য করা বড় কঠিন। আমার বোখারী শরীফের অন্যতম উস্তাদ শায়খুল হাদীস আল্লামা আজিজুল হক, আল্লমা আব্দুল্লা দরখাস্তি, আল্লামা ইসহাক, মাওলানা নেজাম উদ্দিন রাহিমাহুল্লাহ প্রমুখ কেউই আজ দুনিয়ায় নেই। আল্লাহ তায়ালা সকলের দরজা বুলন্দ করুন এবং সবাইকে জান্নাতুল ফেরদৌসের উচ্চ মাকাম দান করুন। আমার জীবনে যে ক’জন শফিক উস্তাদের সান্নিধ্য পাওয়ার সৌভাগ্য হয়েছিল, আল্লামা আবদুল মুমিত ঢেউপাশি হুজুর তাদের অন্যতম। আজ তিনিও চলেগেলেন পরম প্রিয় মাওলার সান্নিধ্যে। এই মহামারি সময়ে হুজুরের জানাযায় শরীক হতে না পারা, শেষ বিদায় জানাবার সুযোগ না পাওয়ার বেদনা বড় পীড়াদায়ক। আল্লাহ তোমার এই মুখলিস বান্দাকে জান্নাতের উঁচু মাক্বাম দাও। আমাদের সকলকেই ধৈর্য ধরার তৌফিক দাও। হুজুর প্রায় ৭০ বছর বয়সে স্ত্রী ৩ ছেলে ২ মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

ভারতে সাজা কেটে দেশে ফিরল আরো ৬ বাংলাদেশি-কমলগঞ্জ বার্তা

কমলগঞ্জ বার্তা রিপোর্ট ॥ বিয়ানীবাজারের শেওলা সীমান্ত দিয়ে ভারতের ডিটেনশন সেন্টারে সাজা কেটে দেশে ফিরেছে ...