Breaking News
Home / জাতীয় / শ্বাসকষ্টে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে পিপিই পরা মেডিকেল রিপ্রেজেন্টেটিভ, পরক্ষনে মৃত্যু

শ্বাসকষ্টে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে পিপিই পরা মেডিকেল রিপ্রেজেন্টেটিভ, পরক্ষনে মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক॥ গতকাল  বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের গড়িয়ারপাড় নামক স্থানে রাস্তার ধারেই পড়েছিল বেক্সিমকো ফার্মার এরিয়া ম্যানেজার সুজিত হালদার। এ সময়ে তার গায়ে পারসোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্টও (পিপিই) জড়ানো ছিল। কিন্তু সারাদেশে যেভাবে মহামারী করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে তাতে করে কেউ ভয়ে তার কাছে আসেনি। তবে পরবর্তীতে পুলিশকে খবর দেওয়া হলে তারা দ্রুত সেখানে যেয়ে তাকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপতালে ভর্তি করে। কিন্তু দিন শেষে তাকে আর বাঁচানো গেল না।স্থানীয়দের মাধ্যমে জানাগেছে, বুধবার সকালে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের গড়িয়ারপাড় এলাকায় রাস্তার পাশে জ্ঞান হারানো অবস্থায় পড়ে থাকা ব্যক্তির নাম সুজিত হালদার (৪০)।তিনি বেক্সিমকো ফর্মাসিটিউক্যাল কোম্পানীর এরিয়া ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার সাথে মোঃ শাহে নেওয়াজ নামে একজন সহযোগী রয়েছেন।শাহে নেওয়াজ জানান, বরিশাল থেকে তারা গৌরনদী উপজেলায় যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে মোটরসাইক (ঢাকা মেট্রো-হ-৪৬-১৩৩৬) দাড় করিয়ে রাস্তার পাশে একটি গাছের উপর বসে পড়েন।এর একটু পরেই তিনি জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন এবং শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। এসব দেখে মুঠোফোনে ওই ব্যক্তির বাড়িতে খবর দেয়া হয়।কিন্তু স্বজনদের আসতে দেরিয়ে হওয়ায় পার্শ্ববর্তী এয়ারপোর্ট থানা পুলিশকে খবর দেয়া হয়।খবর পেয়ে এয়ারপোর্ট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ওয়ারেজসহ একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে দ্রুততার সাথে ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়।এদিকে শেবাচিম হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, খবর পেয়ে প্রশাসনের কর্মকর্তারা সুচিত হালদার নামের ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে আনা হলে তাকে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে আইসোলেশনে রাখা হয়েছিল। তার তার অবস্থার অবনতি ঘটায় এয়ার এম্বুলেন্স যোগে ঢাকায় পঠানোর পথেই তিনি প্রাণ হারান। মৃত্যুর আগে তিনি দুই সন্তান ও স্ত্রী রেখে গেছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Check Also

প্রথমবারের মতো বিমানসেনা হলেন ৬৪ নারী-কমলগঞ্জ বার্তা

আমিনুল ইসলাম হিমেল ॥ বিমানবাহিনীর ৪৮তম নব বিমানসেনা দলের প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ- সমকাল বিমানবাহিনীর ৪৮তম নব ...